কর্মসংস্থান ব্যাংক অনলাইনে ঋণ আবেদন নিয়ম । কর্মসংস্থান ব্যাংক ঋণ আবেদন ফরম নিয়ম Kormosongstan Bank Online Loan Apply

Ticker

6/recent/ticker-posts

কর্মসংস্থান ব্যাংক অনলাইনে ঋণ আবেদন নিয়ম । কর্মসংস্থান ব্যাংক ঋণ আবেদন ফরম নিয়ম Kormosongstan Bank Online Loan Apply


বেকারদের কর্মসংস্থান ব্যাংক ঋণ আবেদন নিয়ম 
বেকার উদ্যোক্তা শিক্ষিত-অশিক্ষিত যুবক-যুবতীরা কর্মসংস্থান ব্যাংকের চাইলে অনলাইনে ঋণের জন্য আবেদন করতে পারবেন ।  যদি কোন উদ্যোক্তা অনলাইনে ঋণের জন্য আবেদন করে, সে ক্ষেত্রে ব্যাংকের পক্ষ থেকে ৭ কর্ম দিবস অথবা ৩০ কর্মদিবসের মধ্যে ব্যাংক হতে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে,  যোগাযোগের পরবর্তী সময়ে ব্যাংক তাদের প্রজেক্ট এর সকল কাগজপত্র ভেরিফাই করবে ।  কর্মসংস্থান ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে,  উদ্যোক্তাদের বয়স ১৮ থেকে ৪৫ এর মধ্যে হতে হবে,  চাইলে বিবাহিত মহিলারা আবেদন করতে পারবেন ।

কর্মসংস্থান ব্যাংক কি সরকারি ? অনেকের প্রশ্ন
এটি বলতে চাই কর্মসংস্থান ব্যাংক সম্পূর্ণ সরকারি স্বায়ত্তশাসিত একটি ব্যাংক । তবে এ ব্যাংকটি শুধুমাত্র বেকার যুবক যুবতীর উদ্যোক্তাদের জন্য ঋণ প্রদান করে থাকে ।




কর্মসংস্থান ব্যাংকে অনলাইনে ঋণের আবেদন যেভাবে করবেন
১)  অনলাইনে ঋণের আবেদন করার ক্ষেত্রে উদ্যোক্তা যে প্রজেক্টের জন‍্য ঋণ নেবেন সে প্রজেক্টর এরিয়া টি সিলেক্ট করতে হবে ।
২)  উদ্যোক্তার নাম তার জাতীয় পরিচয় পত্র বা পাসপোর্ট অনুসারে এর ৫ নাম্বার ঘরে ফিলাপ করতে হবে ।
৩) ৫ নাম্বার ঘরে উদ্যোক্তার জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার প্রদান করতে হবে ।
৪)  সব সময় খোলা থাকে এমন একটি ফোন নাম্বার, ৪ নাম্বার ঘরে প্ৰদান করতে হয় ।
৫)  একজন উদ্যোক্তা ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জামানতবিহীন ঋণ পাবেন, তবে ৫ লক্ষ টাকার উপরে ঋণ নিতে গেলে অবশ্যই জামানত প্রদান করতে হবে ।  ৫ নাম্বার ঘরে উদ্যোক্তার পিতার নাম বা স্পন্সর এর নাম লিখতে হবে ।
৬)  ছয় নাম্বার কোডে উদ্যোক্তার মাতার নাম ফিলাপ করতে হবে
৭)  সাত নাম্বার করে উদ্যোক্তার স্থায়ী এবং অস্থায়ী ঠিকানা ফিলাপ করতে হবে,  স্থায়ী বা অস্থায়ী ঠিকানা জাতীয় পরিচয়পত্র পাসপোর্ট অনুসারে হতে হবে ।
৮) আট নম্বর ঘরে উদ্যোক্তার গ্যারান্টির নাম লিখতে হবে, এখানেই গ‍্যারান্টর অবশ্যই উপার্জনশীল হবে।
৯)  নয় নম্বর ঘরে উদ্যোক্তার গ্যারান্টির জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর ফিলাপ করতে হবে ।
১০) দশ নাম্বার ঘরে জন্ম তারিখ ফিলাপ করতে হবে, যিনি ঋণ আবেদন করবেন বা উদ্যোক্তা তার ।
১১)  সবার শেষ যে ঘরটি রয়েছে সেটা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ, কেননা এই ঘরে আপনার প্রজেক্ট এর সম্পূর্ণ ডিটেইলস লিখতে হবে । আপনার প্রজেক্টটা কিসের উপর ? প্রজেক্টে আপনি কত টাকা ইনভেসমেন্ট করেছেন ? আরো কত টাকা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ইনভেসমেন্ট করতে চাচ্ছেন ? এ টু জেড ডিটেইলস এ প্রজেক্ট এর ঘরে আপনাকে লিখে দিতে  হবে, যা দেখে সাধারণত ভাবে আপনাকে কল করা হয়ে থাকবে ।


অনলাইনে ঋণ আবেদনের জন্য ক্লিক 
ক্লিক করুন সরাসরি এখান থেকে ।


 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য